জঙ্গিরা দুর্বল হয়েছে, নির্মূল হয়নি : কাদের

এই লেখাটি 844 বার পঠিত

এই দেশে জঙ্গিরা দুর্বল হলেও এখনো নির্মূল হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ সরকার ও পুলিশ যৌথভাবে জঙ্গি দমনে সফলতা পেয়েছে। প্যারিসের পুলিশ যেটা পারেনি বাংলাদেশের পুলিশ সেটা করে দেখিয়েছে।

জঙ্গিবাদ দমনে সবাইকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটি প্ল্যাটফর্মে ঐক্যবদ্ধভাবে এসে দাঁড়াতে হবে। আর যারা জঙ্গিবাদের পৃষ্টপোষক তাদের সেই প্ল্যাটফর্মে আহ্বান জানানো হবে না বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

আজ শনিবার সকালে রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান রোস্তরাঁয় হামলার এক বছর উপলক্ষে সেখানে জঙ্গিদের হাতে নিহত দেশি-বিদেশি নাগরিকদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় আওয়ামী লীগ। ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সকালে হলি আর্টিজানে আসে। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ওবায়দুল কাদের সেখানে সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন।

এ সময় সেখানে আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে ছিলেন মাহবুব-উল-হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, এনামুল হক শামীম, আহমদ হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, আমিনুল ইসলাম, বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

আজ সকাল থেকে রাজধানীর গুলশানের ৭৯ নম্বর রোডের এ রেস্তোরাঁয় নিহতদের শ্রদ্ধা জানাতে আসেন বিদেশি কূটনীতিক, উন্নয়ন সংস্থার প্রতিনিধি, নিহতদের পরিবারের স্বজনসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। এ উপলক্ষে আজ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চার ঘণ্টার জন্য হলিজান আর্টিজান রেস্তোরাঁ সবার জন্য উন্মুক্ত রাখার কথা রয়েছে।

সকাল ৮টার কিছু পরে প্রথমে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন, জাপানের রাষ্টদূত মাশাতো ওয়ানাতাবে এবং উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা জাইকার বাংলাদেশের আবাসিক প্রতিনিধি মিকিও হাতাডেয়া। তাঁরা শ্রদ্ধাস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে অল্প সময় নিয়ে হলি আর্টিজান ত্যাগ করেন।

তার পরই রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ফুল হাতে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন হলি আর্টিজানে।

বাংলাদেশে জঙ্গি হামলার সর্ববৃহৎ এ ঘটনাটি ঘটে গত বছরের ১ জুলাই। সেদিন ছিল শুক্রবার। রাত পৌনে ৯টার দিকে রাজধানীর গুলশানের ৭৯ নম্বর রোডের এ রেস্তোরাঁয় পাঁচজনের একটি জঙ্গিদল অতর্কিত হামলা চালায়। রেস্তোরাঁয় থাকা ২০ জন বিদেশি নাগরিকসহ ৩০-৩৫ জনকে জিম্মি করে রাখে এবং রাতভর হত্যাযজ্ঞ চালায়।

পরের দিন শনিবার সকালে রেস্তোরাঁয় জিম্মিদের উদ্ধারে কমান্ডো অভিযান শুরু করে যৌথ বাহিনী। তবে এর আগে শুক্রবার রাতেই জঙ্গিদের সঙ্গে গোলাগুলিতে ডিবির সহকারী কমিশনার (এসি) রবিউল ইসলাম ও বনানী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সালাউদ্দিন খান নিহত হন। অভিযান শেষে যৌথ বাহিনী বিদেশি নাগরিকসহ মোট ১৩ জনকে জীবিত এবং মোট ২০ জনের মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত ২০ জনের মধ্যে দুজন বাংলাদেশি, একজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আমেরিকান, নয়জন ইতালিয়ান, সাতজন জাপানি ও একজন ভারতীয় নাগরিক ছিলেন।

বিশেষ প্রতিবেদন



Contact us

E-mail: news@banglaexpress.ae(For News)
advt@banglaexpress.ae(For Ad)

Carrier

Text to Speech is becoming more and more wide spread in applications, mobile or not. This technology allows interaction of the application with the user on a much more personal level.

Join us

Copyright © Bangla Express 2015
Design & Development By: